ফের ফরমা নওফেলে অতিষ্ঠ না.গঞ্জবাসী


শিরোনাম প্রতিবেদন
কিছুদিন পূর্বেও নিজের ইয়াবা দিয়ে এক যুবককে মাদক দিয়ে ফাসানোর কারণে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করেছিলো নওফেল ওরফে ফরমা নওফেলকে। জামিন পাওয়ার পর ফের ফতুল্লার অলি-গলি দাবড়ে বেড়াচ্ছে সে। নওফেলের ভাষ্য, মাদক বিক্রি করা যাবে তবে টাকা দিতে হবে প্রতি মাসে। অন্যথায় পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয়া হবে। এমনটাই অভিযোগ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ফতুল্লার একাধিক মাদক বিক্রেতার।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করার সুবাদে একচেটিয়া প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করে নওফেল। অসংখ্য ওয়ারেন্টের আসামী, মাদক বিক্রেতা ও গা ঢাকা দিয়ে থাকা বিভিন্ন সন্ত্রসীকে চুটকির মাধ্যমে প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করতে পারে পুলিশ। যার ফলে সোর্সদের মধ্যে পুলিশ নওফেলকেই বেশি বেছে নেয়। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার আর অবৈধ পন্থায় টাকা উপার্জন করছে নওফেল। এতে করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গাজা বিক্রেতা জানান, প্রতি সপ্তাহে নওফেল এসে টাকা নিয়ে যায়। তারপরেও হুটহাট বেশি টাকা চেয়ে বসে সে। যা দেয়া কোনভাবেই সম্ভব নয়। অনীহা প্রকাশ করলেই পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয়ার হুমকী দেয় নওফেল। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকবার পুলিশের কাছে ধরিয়েও দিয়েছে সে।অন্য আরেক মাদক বিক্রেতা জানান, নওফেলের যন্ত্রণায় মাদক ব্যবসায়ি ছাড়াও ভালো মানুষ শান্তি মতো থাকতে পারে না। অসংখ্য মাদক বিক্রেতাদের কাছ থেকে টাকা পাওয়ার পরেও কোন কাজ না থাকলে ভালো মানুষকেও হয়রানি করে সে। পুলিশের ভয় দেখিয়ে টাকা দাবি করে নওফেল। মাসে তার আয়ের পরিমাণ অনেক

ভুক্তভুগীদের দাবি, সোর্স পুলিশকে তথ্য দিয়ে আসামী ধরতে সেই সাথে অপরাধ প্রবনতা কমাতে সহয়তা করে। তাই বলে পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে চাদা উত্তোলন করবে এ কেমন কথা। ফতুল্লা মডেল থানায় নতুন ওসি যোগদান করার পর থেকে এমনিতেই অপরাধীদের চোখের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। বেড়েছে পুলিশী তৎপরতা। কমেছে অপরাধ প্রবণতা। অর্জন করা এই সুনামকে অক্ষুন্ন রাখতে হলে অচীরেই ফরমা নওফেলকে পুনরায় আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা জরুরী।

Read Previous

সোনারগাঁয়ে স্ত্রীসহ হেফাজত নেতা মামুনুল হককে অবরুদ্ধ, হেনস্থা

Read Next

নানা সামছুদ্দিনের মৃত্যুতে, রাফি গভীর শোকাহোত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *